Current Bangladesh Time
বুধবার নভেম্বর ২২, ২০১৭ ১:১২ পূর্বাহ্ন
Barisal News
Latest News
প্রচ্ছদ » বরগুনা, বরগুনা সদর, বেতাগী, সংবাদ শিরোনাম » বরগুনায় ইলিশ উৎপাদন বাড়বে ৬৫ হাজার মেট্রিকটন
১৮ অক্টোবর ২০১৭ বুধবার ৫:০৯:৪৮ অপরাহ্ন
Print this E-mail this

বরগুনায় ইলিশ উৎপাদন বাড়বে ৬৫ হাজার মেট্রিকটন
সাইদুল ইসলাম মন্টু ,বেতাগী


ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ!

ফাইল ফটো

জাতীয় সম্পদ ইলিশের উৎপাদন বৃদ্ধিতে মা ইলিশ রক্ষা কার্যক্রমের সফল বাস্তবায়নে প্রজনন মৌসুমে ডিম ওয়ালা ইলিশ নিধন বন্ধ থাকায় এ বছরে বরগুনা জেলায় ইলিশ উৎপাদন ৬৫০০০ হাজার মেট্রিকনেরও বেশি ছাড়িয়ে যাবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন জেলা মৎস কর্মকর্তা।

জানা গেছে, গত বছরে এ জেলায় ইলিশের ৬৪ হাজার ৩৬৮ মে.টন উৎপাদন হয়েছিল। গত পাঁচ বছরে এখানে ১৯% ইলিশ উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে। জাতীয়ভাবে ৩ লাখ ৯৪ হাজার ৬৫১ মেট্রিক টন উৎপাদন হচ্ছে। এরমধ্যে ১৬ ভাগ অবদান রাখছে বরগুনা জেলা।

জেলার লোকসংখ্যা অনুযায়ী মাত্র ১৯ হাজার মেট্রিকটন এখানকার বাসিন্দাদের চাহিদা পূরনের পর উদ্বৃত থাকে ৪৫ হাজার ৩৬৮ মেট্রিকটন। যা দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করা হয়। এখানে ইলিশ আহরনের সঙ্গে অন্তত ৩০ হাজার জেলে সরাসরি সম্পৃক্ত।

বরগুনা জেলা মৎস কর্মকর্তা মো: ওয়াহিদুজ্জামান জানান, ফলে এখানকার আভ্যন্তরীন বাজারের পাশাপশি রফতানি আয়ের ক্ষেত্রেও উপকূলীয় এ জনপদের মানুষ দেশকে এক নতুন সম্ভাবনারদ্বারে পৌছতে অবদান রাখতে পারবেন। তাছাড়া বিশ্ববাসীর কাছে বরগুনা জেলাকে তুলে ধরতে ডিস্ট্রিক্ট-ব্র্যান্ডিং করা হয়েছে সেখানে জেলার উল্লেখযোগ্য পণ্য হিসেবে গুরুত্বের সাথে ইলিশকে তুলে ধরা হয়েছে। আগামীতে এর সুফল পাবেন জেলাবাসী।

জাতীয় অর্থনীতি ও রফতানি আয়ে ইলিশের অবদান গুরুত্বপূর্ণ। দেশের মোট মাছ উৎপাদনে ইলিশের অবদান প্রায় ১২ থেকে ১৪ ভাগ। ইলিশ থেকে রফতানি আয়ও গত বছরেই দেড়শ কোটি টাকা অতিক্রম করেছে।

২০০২ সাল থেকে ইলিশ দিয়ে মৎসবিজ্ঞানীদের ধারাবাহিক সমীক্ষা এবং তার ফলাফলের ভিত্তিতে সুপারিশ কার্যকর করায় ইতোমধ্যে এ মাছের অস্তিত্ব ও বিপর্যয় রোধ করার পাশাপশি উৎপাদন প্রায় ৪৭ ভাগ বাড়নো সম্ভব হয়েছে। এ ক্ষেত্রে পিছিয়ে নেই বরগুনা জেলাও।

মা ইলিশ সংরক্ষনে ১ অক্টোবর থেকে ২২ অক্টোবর পর্যন্ত দেশের সকল অভয়াশ্রমে ইলিশ ধরা, বিক্রি ও বাজারে সরবরাহ বন্ধ করেছে সরকার। তাই এখানে কঠোর অবস্থানে রয়েছে জেলা ও উপজেলা প্রশাসন। এর অন্যতম লক্ষ্য ইলিশের ডিম ছাড়ার এই প্রধান মৌসুমে জেলেরা যাতে মা ইলিশ শিকার না করেন।

ডিম ওয়ালা ইলিশ রক্ষায় ২০০৬ সাল থেকে প্রতিবছর ১৫ অক্টোবর থেকে ২৪ অক্টোবর পর্যন্ত এ নিষেধাজ্ঞা বলবৎ ছিল। তবে তিথির পরিবর্তনের কারনে প্রজনন মৌসুমে মা ইলিশ রক্ষায় এবছর থেকে ওই সময় পরিবর্তন করে ১ থেকে ২২ অক্টোবর পর্যন্ত ইলিশসহ সবধরনের মৎস আহরন সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করা হয়।

জেলা মৎস অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বরগুনা জেলায় ১৮০ টি অভিযান, ৭৮ টি মোবাইল কোর্ট পরিচালনা, ৩৭৮ কেজি ইলিশ, ৫১ লক্ষ টাকা মূল্যের ১ লক্ষ ১৭ হাজার মিটার জাল জব্দ, ১০ জন জেলেকে কারাদন্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

বিষেজ্ঞরা জানান, ইলিশ দৈনিক গড়ে ৭০ কিলোমিটার পর্যন্ত নদী-সাগরপথ অতিক্রম করতে থাকে। এরা সারাবছরই কমবেশি প্রজনন করলেও অক্টোবর বা আর্শ্বিনের কার্তিকের বড় পূর্নিমার সময় দেশের চারটি এলাকায় সর্বাধিক প্রজনন করে থাকে। এ সময়টিতেই ৬০ ভাগ থেকে ৭০ ভাগ ইলিশ পূর্ণ পরিপক্ক ও প্রজননক্ষম অবস্থায় থাকে। আর সময়টিতেই সারা বছরের ধৃত মাছের সবচেয়ে বেশি প্রায় ৫০ থেকে ৬০ ভাগ ইলিশ ধরাও পড়ে। এরই সঙ্গে বিপূল জাটকাও ধরা পড়ে থাকে। ফলে বিগত দশকে দেশে ইলিশের উৎপাদন আশঙ্কাজনক ভাবে হ্রাস পাচ্ছিল।

পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিশারিজ ও ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সহকারি অধ্যাপক মো. জাহাঙ্গীর আলম আমাদের বরিশাল ডটকমকে জানান, প্রজননকালীন ডিম ওয়ালা ইলিশ নিধন বন্ধ থাকায় এর মধ্যেই দেশের আভ্যন্তরীন ও উপকূলীয় এলাকা থেকে ইলিশের সহনীয় উৎপাদন উন্নীত করা সম্ভব হয়েছে। জাটকা নিধন বন্ধ সহ মূল প্রজনন কালে সব ধরনের মৎস আহরন বন্ধ রাখতে রাখতে পারলে দেশে ইলিশের আহরন আরো অনেক বৃদ্ধি পাবে।

বেতাগী উপজেলা মৎস কর্মকর্তা মোস্তফা- আল- রাজীব সাধারণ মানুষ ও জেলেদের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধি, মৎস বিভাগের কর্মতৎপরতা, জেল জরিমানা এবং সরকরের নানামূখি পদক্ষেপের কারনে মা ইলিশ রক্ষা কার্যক্রম সফলভাবে বাস্তবায়িত হলে সামনের দিনগুলোতে ইলিশ উৎপাদন আরো বৃদ্ধি পাবে এমনই আশাব্যক্ত করেছেন তিনি।

 

সম্পাদনা: বরি/প্রেস/মপ

শেয়ার করতে ক্লিক করুন:

আমাদের বরিশাল ডটকম -এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
(মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। amaderbarisal.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের মিল আছেই এমন হবার কোনো কারণ নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে amaderbarisal.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নেবে না।)
বরিশাল জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগ
বাবা ভেবেছিলেন ছেলে আর ফিরবে না
শেবাচিমে রোগীর স্বজন-চিকিৎসকদের মধ্যে মারামারি
বেতাগীতে লাভ জনক কৃষি পণ্য সুপারি
মালয়েশিয়ায় সংগ্রামী জীবন ঝালকাঠির নাসিরের
পটুয়াখালীর পায়রা বন্দরে চাকরির সুযোগ
Recent: Mayor Hiron Barisal
Recent: Barisal B M College
Recent: Tender Terror
Kuakata News

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
আমাদের বরিশাল ২০০৬-২০১৪

প্রকাশক: মোয়াজ্জেম হোসেন চুন্নু, সম্পাদক: রাহাত খান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: মোঃ জিয়াউল হক
৪৬১ আগরপুর রোড (নীচ তলা), বরিশাল-৮২০০।
ফোন : ০৪৩১-৬৪৫৪৪, ই-মেইল: [email protected]