AmaderBarisal.com Logo

বিয়ের প্রলোভনে কিশোরীকে ধর্ষণ শেষে যৌনপল্লীতে বিক্রি

তালতলী প্রতিবেদক
আমাদেরবরিশাল.কম

৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ মঙ্গলবার ৬:৪৩:০১ অপরাহ্ন

barguna-news-map বরগুনা হিন্দু পরিবারকে উচ্ছেদের অভিযোগে একজন গ্রেফতার সংবাদ মানচিত্রবরগুনার তালতলীতে কিশোরীকে বিয়ে করার প্রলোভনে স্ত্রী পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন স্থানে রেখে ধর্ষণ করে। দীর্ঘ ২ বছর স্ত্রী রুপে ব্যবহার করার পর ওই কিশোরী বিয়ের জন্য চাপ দিলে কৌশলে তাকে পটুয়াখালীর যৌন পল্লীতে বিক্রি করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

উপজেলার নিদ্রা সকিনা কোষ্ট গার্ডের মাঝি আবুল কালাম (৩০) এর বিরুদ্ধে এ অভিযোগ দায়ের করেন ছোটবগী গ্রামের ১৪ বছরের এক কিশোরী।

জানা গেছে, উপজেলার মেনিপাড়া গ্রামের আবদুল বারেক হাওলাদারের ছেলে ১ সন্তানের জনক আবুল কালাম নিদ্রা সকিনা কোষ্টগার্ডের মাঝি হিসেবে দৈনিক হাজিরায় চাকুরী করে। মোবাইলের সম্পর্কের মাধ্যমে ওই কিশোরীকে এনে কোষ্ট গার্ডের সদস্য পরিচয় দিয়ে প্রভাব খাটিয়ে তাকে স্ত্রী পরিচয় দিয়ে ২বছর যাবৎ বিভিন্ন স্থানে রেখে মেলামেশা করে।

ওই কিশোরী বিয়ের জন্য চাপ দিলে প্রায় ৪মাস আগে কৌশলে পটুয়াখালী যৌনপল্লীর সর্দাররানীর রানী শাহনাজের কাছে ৫০ হাজার টাকায় বিক্রি করে দিয়ে আসে। যৌনপল্লীর ওই শাহনাজ কিশোরীকে অবৈধ কাজে বাধ্য করার জন্য নির্যাতন করে। পরে কৌশলে প্রায় ১৫দিন পর ওই কিশোরী পালিয়ে আসে।

ইউপি চেয়ারম্যান দুলাল ফরাজী বলেন, ঘটনাটি জেনে থানায় জানিয়েছি। পুলিশ কোন পদক্ষেপ নেয়নি।

ওসি পুলক চন্দ্র রায় বলেন, ভিকটিম অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিদ্রা সকিনা কোষ্টগার্ডের পেটি অফিসার আশরাফুল ইসলাম বলেন, এ অভিযোগ এখনই শুনলাম। ঘটনার সত্যতা পেলে ব্যবস্থা নেব।



সম্পাদনা: বরি/প্রেস/মপ


প্রকাশক: মোঃ মোয়াজ্জেম হোসেন তালুকদার    সম্পাদক: মো: জিয়াউল হক
সাঁজের মায়া (২য় তলা), হযরত কালুশাহ সড়ক, বরিশাল-৮২০০। ফোন : ০৪৩১-৬৪৫৪৪, মুঠেফোন : ০১৮২৮১৫২০৮০ ই-মেইল : [email protected]
আমাদের বরিশাল ডটকম -এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।