Current Bangladesh Time
শুক্রবার মার্চ ২২, ২০১৯ ১২:১১ অপরাহ্ন
Barisal News
Latest News
প্রচ্ছদ » আমতলী, বরগুনা, বরগুনা সদর, সংবাদ শিরোনাম » রডের উপর দাড়িয়ে ভবন, ধসে প্রাণ শংকায় শিক্ষার্থীরা
৬ মার্চ ২০১৯ বুধবার ৫:০১:০৫ অপরাহ্ন
Print this E-mail this

রডের উপর দাড়িয়ে ভবন, ধসে প্রাণ শংকায় শিক্ষার্থীরা


রডের উপর দাড়িয়ে ভবন, ধসে প্রাণ হানির শংকায় শিক্ষার্থীরা

জাকির হোসেন, আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি::: আমতলীর পূর্বতক্তাবুনিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবন কাম সাইক্লোন সেল্টারের বেহাল দশা। ইট সুরকি বিহীন ১৬টি নরবড়ে লোহার পিলারের উপর দাড়িয়ে আছে ভবনটি। বিম ও ছাদের পলেস্তারার, সুরকি খসে পরে এখন রড় বেরিয়ে পড়েছে। আর এই রডের উপর দাড়িয়ে রয়েছে ভবনটি। ভবনের দোতলায় শিক্ষার্থীদের থাকা অবস্থায় দুলতে থাকে। ফলে যে কোন সময় ভবন ধসে প্রাণ হাণি ঘটতে পারে দের শতাধিক শিক্ষার্থীর।

বিদ্যালয় সুত্রে জানা গেছে, ১৯৩৫ সনে ৬৬ শতাংশ জমির উপর বিদ্যায়টি স্থাপন করা হয়। বর্তমানে বিদ্যালয়টিতে দেড় শতাধিক শিক্ষার্থী রয়েছে। বিদ্যালয় স্থাপনের পর আমতলী উপজেলা এলজিইডি ১৯৯২ সালে ১১ লক্ষ টাকা ব্যায়ে ৪ কক্ষ বিশিষ্ট সাইক্লোন সেল্টার কাম বিদ্যালয় ভবন নির্মান করে। নির্মানের পর ২৭ বছরেও ভবনটি আর সংস্কার করা হয়নি। দীর্ঘ দিনেও বিদ্যালয় ভবনটি সংস্কার না করায় ভবনের পিলারের, দেয়ালের ও ছাদের পলেস্তারার, সুরকি খসে পড়েছে। দরজা জানালা বলতে কিছুই নেই। লোহার বিমের ঢালাই খসে পড়ে লোহার রডগুলো বেড়িয়ে গেছে। বিদ্যালয়ের ভবনের ছাদে অশংখ্য ফাটল ধরেছে। ছাদে ফাটল ধরায় বৃষ্টি আসলেই ছাদ চুয়ে ভিতরে পানি পড়ে মেঝ তলিয়ে যায়। এ অবস্থায় ৫ বছর পূর্বে বিদ্যালয় ভবনটি পরিত্যাক্ত ঘোষনা করে আমতলী উপজেলা শিক্ষা অফিস।

সোমবার সকালে সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, বিদ্যালয় ভবন কাম সাইক্লোন সেল্টারটি ১৬টি পিলারের উপর দাড়িয়ে আছে। পিলারের পলেস্তারার ও সুরকি খসে পরে রড বেড়িয়ে রয়েছে। এখন শুধু রডের উপর পুরো নরবরে ভবনটি দাড়িয়ে রয়েছে। ভবনের উপরে উঠলে ভবন দুলতে থাকে । ফলে যে কোন সময় ভবনটি ধসে দেড় শতাধিক শিক্ষার্থীর প্রাণ হানি ঘটতে পারে। এছাড়া ছাদ ও বিমের পলেস্তারার খসে পরায় ফাটল ধরেছে সব জায়গায়। ৪টি কক্ষের দেয়ালের এবং ছাদের পলেস্তারার বলতে কিছু নেই। দড়জা জানালা অনেক আগেই খুলে পড়েছে।

এটি যে স্কুল ভবন তা এখন আর বোঝার কোন উপায় নেই। একারনে শিক্ষা অফিস ভবনটি ব্যাবহারের অনুপযোগী হওয়ায় পরিত্যাক্ত ঘোষনা করে। এমনকি ভবনের ভিতরে যাতে কোন ছাত্র ছাত্রী প্রবেশ না করে করে সে ব্যাপারেও নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। ভবনের এমন অবস্থা হওয়ার পরও নিরুপায় হয়ে শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদের নিয়ে ভবনে ক্লাশ চালিয়ে যাচ্ছে।

পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী ঝুমুর বেগম বলেন, ভবনের উপরে ক্লাশ করার সময় ভবনটি দুলতে থাকে আমারা ভয় এবং আতঙ্কের মধ্যে দিয়ে ক্লাশ করি কখন ধসে বুঝি আমরা মারা যাই। চতুর্থ শ্রেণির জিসান বলেন, বৃষ্টির সময় আমরা ঠিক মত ক্লাশ করতে পারি না। এতে আমাদের লেখা পড়ার অনেক ক্ষতি হয়।

আরেক শিক্ষার্থী মো: কবির হোসেন বলেন, ভয়ে আমরা ভবনে পাশ দিয়েও হাটি না কারন কখন যে ভবন ধসে গায়ে পড়ে। পূর্বতক্তাবুনিয়া গ্রামের একজন অভিভাবক মারিয়া বেগম জানান, বিদ্যালয়টির খুব খারাপ অবস্থা। পিলালের পলেস্তারার ও সুরকি খসে পড়ায় পুরো ভবনটি রডের উপর দাড়িয়ে আছে। ফলে যে কোন সময় ভবন ধসে শিক্ষার্থীদের প্রাণ হানি ঘটতে পারে।

আরেক অভিভাবক নাসির হাওলাদার বলেন, শিক্ষার্থীদের কথা বিবেচনা করে এখানে এবকটি নতুন ভবন নির্মান জরুরী হয়ে পড়েছে। অন্যদিকে রয়েছে স্বাস্থ্য সম্মত পায়খানার সমস্যা। এখানে স্বাস্থ্য সম্মত পায়খানা না থাকায় শিক্ষার্থীরা বনে জঙ্গলে গিয়ে পায়খানা প্রশাাব সারে। আর শিক্ষকদের প্রতিবেশীদের বাড়িতে গিয়ে এ কাজটি সারতে হয়।

পূর্বতক্তাবুনিয়া সরকারী প্রাথমিক বিধ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সৈয়দা রাবেয়া খাতুন জানান, বিদ্যালয় ভবনটির খুব খারাপ অবস্থা। দীর্ঘ দিনেও সংস্কার না করায় পিলারের ইট সুরকি পলেস্তারার খসে পড়েছে। এখন শুধু রডের উপর দাড়িয়ে আছে ভবনটি। ভবনের উপরে উঠলেই ভবনটি দুলতে থাকে। ফলে যে কোন সময় ভবনটে ধসে দেড় শতাধিক শিক্ষার্থীর প্রাণ হানি ঘটতে পারে। এ নিয়ে আমরা সব সময় আতঙ্কে থাকি।

আমতলী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো: মজিবুর রহমান বিদ্যালয়টির ভবনটির দুরবস্থার কথা স্বীকার করে বলেন, নতুন ভবনের চাহিদা দেওয়া হয়েছে। বরাদ্দ আসলে ভবন নির্মান করা হবে।

সম্পাদনা: বরি/প্রেস/মপ

শেয়ার করতে ক্লিক করুন:

আমাদের বরিশাল ডটকম -এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
(মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। amaderbarisal.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের মিল আছেই এমন হবার কোনো কারণ নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে amaderbarisal.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নেবে না।)
বরিশালের ৬ এএসপি বদলি
বিনামূল্যে সার-বীজ পাবে বরিশালের আউশচাষীরা
ব্যালট বাক্স ছিনতাই আর দেখতে চাই না -ইসি রফিকুল ইসলাম
৩১ মার্চ বরিশালের ২২ উপজেলায় যানবাহন ও নৌ চলাচল বন্ধ
বিসিসিতে বাড়ছে শ্রমিকদের বেতন, কমছে নলকূপ বসানোর ফি
Recent: Mayor Hiron Barisal
Recent: Barisal B M College
Recent: Tender Terror
Kuakata News

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
আমাদের বরিশাল ২০০৬-২০১৪

প্রকাশক ও নির্বাহী সম্পাদক: মোয়াজ্জেম হোসেন চুন্নু, সম্পাদক: রাহাত খান
৪৬১ আগরপুর রোড (নীচ তলা), বরিশাল-৮২০০।
ফোন : ০৪৩১-৬৪৫৪৪, ই-মেইল: [email protected]