AmaderBarisal.com Logo

ভয়াবহ নদী ভাঙনের কবলে দশমিনা


আমাদেরবরিশাল.কম

৮ মে ২০১৯ বুধবার ৫:৪২:১১ অপরাহ্ন

ভয়াবহ নদী ভাঙনের কবলে দশমিনায়

পটুয়াখালী জেলার দশমিনা উপজেলা। নদীমাতৃক দেশের একদম মাতৃগর্ভে তেতুঁলিয়া নদীর অবস্থান। বন্যা কিংবা খড়া কোন কিছুতেই যেন এই নদীটি ক্লান্ত হয়না। সে তার নিজ গতিতে বছরের পর বছর ভাঙন অব্যাহত রেখেছে।

যার ফলে বিলীন হয়ে গেছে চর ভোলাই শিং, কালির চর, ভাটার চর, পাঁচখালীর চর ও পাতারচরসহ বিভিন্ন গ্রাম। শত বছরের সেই পুরনো ভাঙন থাকা সত্যেও কৃষকরা আজও পর্যন্ত নদী গর্ভে বিলীন হওয়া জমির খাজনা পরিশোধ করছেন।

সম্প্রতি ঘূর্ণিঝড় ফণীর প্রভাবে নদীর পানি বেড়ে উত্তাল সৃষ্টি হওয়ায় উপকূলীয় এ উপজেলার সদর ইউনিয়নের হাজিরহাট ও বাঁশবাড়িয়া এলাকায় ভয়াবহ ভাঙন দেখা দিয়েছে। এতে করে চরম হুমকির মুখে পড়েছেন লঞ্চঘাটসহ নদী তীরবর্তী ব্যবসায়ী এবং কয়েক শ’ পরিবার। যে কোন মূহুর্তে নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যেতে পারে লঞ্চঘাট এলাকার সেই পুরানো একমাত্র মসজিদটি।

স্থানীয় ভুক্তভোগীরা জানান, ঘূর্ণীঝড় ফণীর প্রভাবে গত শুক্রবার বিকাল থেকে উপজেলার তেতুঁলিয়া তীরবর্তী হাজিরহাট ও বাঁশবাড়িয়া বাজারের নদী ভাঙনের অনেকটাই তীব্রতা বেড়েছে। বর্তমানে ফণীর কারণে ভাঙন চরম আকার ধারণ করেছে। নদী ভাঙনের কবলে গত প্রায় একযুগ ধরে হাজিরহাট ও বাঁশবাড়িয়া এলাকার দোকানপাট, বসত ঘর ও শত শত একর ফসলী জমি তেতুঁলিয়া ও বুড়া গৌরঙ্গ নদীতে বিলীন হয়েছে।

পটুয়াখালী পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রকৌশলী হাসানুজ্জামান বলেন, বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে এবং তাদের নির্দেশটা অনুযাগী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।



সম্পাদনা: বরি/প্রেস/মপ


প্রকাশক: মোঃ মোয়াজ্জেম হোসেন তালুকদার    সম্পাদক: মো: জিয়াউল হক
সাঁজের মায়া (২য় তলা), হযরত কালুশাহ সড়ক, বরিশাল-৮২০০। ফোন : ০৪৩১-৬৪৫৪৪, মুঠেফোন : ০১৮২৮১৫২০৮০ ই-মেইল : [email protected]
আমাদের বরিশাল ডটকম -এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।