AmaderBarisal.com Logo

লাইফ সাপোর্টে এরশাদ


আমাদেরবরিশাল.কম

২ জুলাই ২০১৯ মঙ্গলবার ১:৩৭:২২ পূর্বাহ্ন

লাইফ সাপোর্টে এরশাদ

সিএমএইচে চিকিৎসাধীন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শারীরিক অবস্থার আরও অবনতির খবর দিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

সোমবার বিকালে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে এরশাদকে দেখে আসার পর তিনি সাংবাদিকদের বলেছেন, এরশাদ ‘লাইফ সাপোর্টে’ আছেন।

৯০ বছর বয়সী এরশাদ গত ২২ জুন থেকে সিএমএইচে ভর্তি; হিমোগ্লোবিন স্বল্পতা তার আগেই ছিল, এখন ফুসফুসে সংক্রমণের সঙ্গে দেখা দিয়েছে কিডনির জটিলতা।

এরশাদের সরকারের মন্ত্রী অবসরপ্রাপ্ত কর্নেল আবদুল মালেকের ছেলে জাহিদ মালেক বলেন, “ওনার অবস্থা ক্রিটিক্যালই বলা যায়। লাইফ সাপোর্টে আছে। ওভারঅল সিচুয়েশন ক্রিটিক্যাল।”

সংসদে বিরোধীদলীয় নেতা এরশাদের চিকিৎসার বিষয়ে তিনি বলেন, “ডাক্তাররা সকলেই মত দিয়েছেন, এ মুহূর্তে বাইরে নেওয়ার মতো অবস্থা নেই। এখন যত ধরনের চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব, তা এখানেই দেওয়া সম্ভব। এখন বাকিটা আল্লাহর ইচ্ছা।”

সিএমএইচে জাহিদ মালেকের সঙ্গে এরশাদের ভাই, জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জি এম কাদের ও মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গাঁও উপস্থিত ছিলেন।

এরশাদকে ‘ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিটে’ রাখার কথা জাতীয় পার্টি এতদিন বলে এলেও সোমবার সকালে দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এ কে এম মোস্তফার ফেইসবুক পোস্ট থেকে জানা যায়, তাকে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়েছে। মোস্তফা একটি ছবি দিয়ে ক্যাপশনে লিখেছেন, “পল্লীবন্ধু এরশাদ স্যারের পাশে কোরআন তেলোয়াত করছেন স্ত্রী বেগম রওশন এরশাদ। আল্লাহ স্যারকে সুস্থ করে দেও।”

চিকিৎসাধীন এরশাদের অবস্থা উন্নতির দিকে বলে শনিবার পর্যন্ত জানিয়ে আসছিলেন জাতীয় পার্টির নেতারা। কিন্তু রোববার সকাল থেকে অবনতির দিকে যায়। এরপর রাতে তার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে তা গুজব বলে উড়িয়ে দেন ভাই জি এম কাদের। ভাইয়ের শারীরিক অবস্থার খবর সময়ে সময়ে সাংবাদিকদের জানাচ্ছেন তিনি।

সোমবার দুপুরে এরশাদের রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে জি এম কাদের মৃত্যুর খবরগুলোকে ‘গুজব’ আখ্যা দিয়ে কেবল আইএসপিআরের ঘোষণার উপর নির্ভর করতে বলেন সাংবাদিকদের। এরশাদের সার্বিক শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে তিনি বলেন, “সকাল পর্যন্ত উনার শারীরিক অবস্থা আগের মতোই স্থিতিশীল রয়েছে, অর্থাৎ অপরিবর্তিত আছে। ডাক্তারদের ভাষায় অপরিবর্তিত থাকা শুভ লক্ষণ। উনারা শঙ্কা করেছিলেন যে অবস্থার অবনতি হতে পারে। তা যেহেতু হয়নি, স্থিতিশীল আছে। “গতকাল (রোববার) উনার লাংসের ইনফেকশান বেড়েছিল, সেটা কমের দিকে। গতকাল যে শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল, আন্ডার প্রেসার অক্সিজেন দিতে হত। এখন দুই ঘণ্টা আন্ডার প্রেসার, দুই ঘণ্টা নরমাল অক্সিজেন দিচ্ছেন। এই ধরনের ট্রেন্ড চালু থাকলে নরমাল অক্সিজেন দেওয়া হবে। এরপর পরিস্থিতির উন্নতি ঘটলে অক্সিজেন সরিয়ে নেওয়া হবে।”

এরশাদের সংক্রমণ কিডনিতেও ছড়ানোর কথা জানিয়ে জি এম কাদের বলেন, “উনার কিডনিতে ইনফেকশান একটু বেড়েছে। ডাক্তাররা এখন সেদিকে দৃষ্টি রাখছেন। তবে উনি শঙ্কামুক্ত নন। আমরা আশাবাদী উনি সুস্থ হয়ে উঠবেন।”

এরশাদকে দেখতে সিএমএইচে কাদের : চিকিৎসাধীন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে দেখতে সোমবার সকালে সেখানে যান সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। জাতীয় পার্টির সূত্রে এ কথা জানা গেছে। সিএমএচইচে গিয়ে ওবায়দুল কাদের এরশাদের শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নেন। এ সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন জি এম কাদের ও জাতীয় পার্টির মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা। এছাড়া আওয়ামী লীগের জেষ্ঠ নেতা সাবেক মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদসহ বিভিন্ন রাজনৌতিক দলের নেতারা হাসপাতালে এরশাদকে দেখতে যান।

স্বামীর পাশে আবেগাপ্লুত রওশন: স্বামী সাবেক প্রেসিডেন্ট হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শয্যাপাশে দাঁড়িয়ে আবেগাপ্লুত স্ত্রী রওশন এরশাদ। রওশন হাত বাড়িয়েছেন। হাত ধরেছেন শয্যাশায়ী প্রিয়তম এরশাদ। এক আবেগঘন দৃশ্য। ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) সোমবার (০১ জুলাই) এমনই এক দৃশ্যের অবতারণা হলো। মনিটরে বাইরে থেকে এ দৃশ্য দেখে উৎফুল্ল হয়ে উঠলেন জাতীয় পার্টির নেতা-কর্মীরা।

তারা সেই মনিটরেই দেখলেন প্রায় আধা ঘণ্টা জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে থাকা স্বামীর পাশে দাঁড়িয়ে কোরআন তেলাওয়াত করেছেন স্ত্রী রওশন। এরশাদের শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত থাকলেও তিনি জীবিত আছেন- এদিন বিকেলে এমন তথ্যই দিলেন রওশন এরশাদ। তিনি ময়মনসিংহ-৪ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় উপনেতা।

রওশন এরশাদ জানান, তিনি এরশাদের দিকে হাত বাড়াতেই এরশাদ হাত ধরেছেন, পা নাড়িয়েছেন। চিকিৎসাধীন এরশাদের পাশে প্রায় আধা ঘণ্টা কোরআন তেলাওয়াত করেছেন। তিনি এরশাদের সুস্থতার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চান। স্বামী এরশাদকে দেখতে সোমবার দুপুর ১২টার দিকে ঢাকার সিএমএইচে যান স্ত্রী বেগম রওশন এরশাদ। এ সময় সঙ্গে ছিলেন এরশাদ-রওশন দম্পতির সন্তান রাহগীর আল মাহে এরশাদ।

রওশন এরশাদের ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র জানায়, সিএমএইচকে ঘিরে দলীয় নেতা-কর্মীদের ভিড়ের কারণে এরশাদের বেডে থাকা ক্যামেরাটি রোববার (৩০ জুন) রাতে বন্ধ করে দেওয়া হয়। ফলে বাইরে থেকে টিভি মনিটর বন্ধ থাকায় দলটির নেতা-কর্মীদের মাঝে গুজব ছড়িয়ে পড়ে এরশাদ বেঁচে নেই।

কিন্তু এদিন দুপুরে রওশন এরশাদ সেখানে যাওয়ার পর পুনরায় ক্যামেরা ‘অন’ করা হয় এবং বাইরে থেকে দলটির নেতা-কর্মীরা স্বামী-স্ত্রীর আবেগঘন এমন দৃশ্য নিজেদের চোখেই প্রত্যক্ষ করেন। একই সঙ্গে তারা নিশ্চিত হন বিরোধী দলীয় নেতা এখনও জীবিত রয়েছেন।



সম্পাদনা: বরি/প্রেস/মপ


প্রকাশক: মোঃ মোয়াজ্জেম হোসেন তালুকদার    সম্পাদক: মো: জিয়াউল হক
সাঁজের মায়া (২য় তলা), হযরত কালুশাহ সড়ক, বরিশাল-৮২০০। ফোন : ০৪৩১-৬৪৫৪৪, মুঠেফোন : ০১৮২৮১৫২০৮০ ই-মেইল : [email protected]
আমাদের বরিশাল ডটকম -এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।