Current Bangladesh Time
সোমবার ফেব্রুয়ারী ২৪, ২০২০ ১:২৪ অপরাহ্ন
Barisal News
Latest News
প্রচ্ছদ » পটুয়াখালী, পটুয়াখালী সদর, বাউফল, সংবাদ শিরোনাম » জীবনযুদ্ধে সংগ্রামী শিশু সিয়াম
১৪ ডিসেম্বর ২০১৯ শনিবার ৫:০০:০৮ অপরাহ্ন
Print this E-mail this

জীবনযুদ্ধে সংগ্রামী শিশু সিয়াম


বাউফলে জীবনযুদ্ধে সংগ্রামী শিশু শিক্ষার্থী সিয়াম

কৃষ্ণ কর্মকার. বাউফল পটুয়া:::পটুখালীর বাউফল উপজেলার সদর ইউনিয়নের গোসিংগা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী মো. সিয়াম। মাত্র ৯ বছর বয়সেই জীবন যুদ্ধে এক সংগ্রামী শিশু। যে বয়সে পড়াশোনার পাশাপাশি সহপাঠীদের সঙ্গে খেলাধূলা নিয়ে ব্যস্ত থাকার কথা।

ঠিক সেই বয়সেই জীবন ও জীবিকা নিয়ে চিন্তা করতে হচ্ছে এবং সংসারের হাল ধরতে হচ্ছে তাকে। সংসারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি ছিলেন তার বাবা আবদুল জলিল মুন্সি (৪২)। ছয় বছর আগে তিনি এক দুর্ঘটনায় কোমরে আঘাত পেয়ে পুরোপুরি পঙ্গু হয়ে যান।আর এ কারণে শিশু বয়সেই পাঁচ সদস্যের সংসারের হাল ধরতে হচ্ছে শিশু শিক্ষার্থী সিয়ামকে।

সিয়ামের বাবা আবদুল জলিল উপজেলা সদর ইউনিয়নের গোসিংগা গ্রামের বাসিন্দা। তিনি ছিলেন গাছ কাটার শ্রমিক। সহায় সম্পদ বলতে পৈতৃক জমির ওপর একটি দোচালা টিনের ঘর। তার আয়ের টাকায় চলত দুই ছেলে, এক মেয়ে, স্ত্রীসহ পাঁচ সদস্যের সংসার। অভাবের সংসার হলেও ভালোই চলছিল পরিবারের সবার জীবন। কিন্তু ছয় বছর আগে গাছ কাটতে গিয়ে গাছের নিচে চাপা পড়ে গুরুতর আহত হন তিনি। সাধ্য অনুযায়ী চিকিৎসা করিয়ে বাঁচানো গেলেও আবদুল জলিল পঙ্গু হয়ে যান আজীবনের জন্য।

তখন সংসারের দায়িত্ব নিতে হয় স্ত্রী মোসা. লিপি বেগমকে (৩৫)। দুইটি গরু বর্গা পালন ও ঝিয়ের কাজ করে কোনো রকমে সংসার চালান লিপি বেগম। সিয়ামের বড় ভাই মো. সায়েম সোনামুদ্দিন মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষা দিবে। সায়েম মাঝে মধ্যে মায়ের গরু পালনে সহযোগিতা করত। পরীক্ষা খুব কাছাকাছি হওয়ায় পড়াশোনায় মনোনিবেশের কারণে এখন সব দায়িত্ব নিতে হচ্ছে সিয়ামকে।

নিয়মিত বিদ্যালয়ে যায় সিয়াম। বিদ্যালয় ছুটি শেষে ও ছুটির দিনগুলোতে অন্য সব সহপাঠীদের মতো মাঠে গিয়ে খেলার সময় হয় না তার। জীবিকার তাগিদে পঙ্গু বাবার হুইল চেয়ারে ভ্রাম্যমাণ টং দোকান সাজিয়ে পথে বের হতে হয় ছোট্ট শিশু সিয়ামকে। সিয়ামের এই ভ্রাম্যমাণ টং দোকানে বিক্রি হয় চকোলেট, চুইংগাম, চিপস, চানাচুর । পথচারীদের কাছে এসব পণ্য বিক্রি করে আয়ের টাকা দিয়ে চলে তার পরিবারের জীবিকা।
সিয়ামের মা লিপি বেগম বলেন, ‘যে বয়সে খেলাধূলা করার কথা, সেই বয়সে সিয়ামকে সংসারের হাল ধরতে হয়েছে। প্রাণ ভরে দোয়া করি সবার সহযোগিতায় আমার সিয়াম যেন মানুষের মত মানুষ হতে পারে।’

সিয়ামের বাবা আবদুল জলিল বলেন,‘আয়ের একমাত্র অবলম্বন ছিলাম আমি। এখন হুইল চেয়ারেই বন্দি আমার জীবন। নড়াচড়া করতে পারি না। এখন শিশু ছেলে সিয়ামের ওপর নির্ভরশীল। সিয়ামই এখন তাদের পরিবারের আয়ের বড় অবলম্বন। বড় ছেলে সায়েম উপজেলার সোনামদ্দিন মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে ২০২০ সালের এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেবে। ছোট মেয়ে মারিয়ার এখনও স্কুলে যাওয়ার মত বয়স হয়নি।’ পঙ্গু হয়ে গেলেও তিনি চান তার সন্তানেরা যেন পড়ালেখা করে কিছু একটা করতে পারে।

সিয়ামের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গোসিংগা সরকারি প্রাথমকি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক উত্তম কুমার সরকার বলেন, ‘সিয়াম পড়াশোনায় যথেষ্ট ভালো। ক্লাস পরীক্ষাগুলোতে সে মেধাতালিকায় থাকে। শিক্ষকেরাও ওর বিষয়ে বেশ আন্তরিক। কিন্তু সিয়াম যেভাবে কষ্ট করে পড়াশোনা করছে এবং পরিবারকে সাহায্য করার চেষ্টা করছে সেটা অত্যন্ত প্রশংসনীয় এবং সমাজের দৃষ্টান্ত।’

সম্পাদনা: বরি/প্রেস/মপ

শেয়ার করতে ক্লিক করুন:

আমাদের বরিশাল ডটকম -এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
(মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। amaderbarisal.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের মিল আছেই এমন হবার কোনো কারণ নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে amaderbarisal.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নেবে না।)
ব্রিজ ভাঙায় ভাগ্য খুলছে জনপ্রতিনিধিদের!
বাউফলে ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে চলছে পাঠদান
কৃষকদের হয়রানি করলে ছাড় নয়: খাদ্যমন্ত্রী
রিফাত হত্যা : ভিডিও ডাউনলোডের পেন ড্রাইভ সনাক্ত
সাগর-রু‌নির হত্যার তদন্তে পু‌লি‌শের ব্যর্থতা বলা যা‌বে না: আইজিপি
Recent: Mayor Hiron Barisal
Recent: Barisal B M College
Recent: Tender Terror
Kuakata News

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
আমাদের বরিশাল ২০০৬-২০১৪

প্রকাশক ও নির্বাহী সম্পাদক: মোয়াজ্জেম হোসেন চুন্নু, সম্পাদক: রাহাত খান
৪৬১ আগরপুর রোড (নীচ তলা), বরিশাল-৮২০০।
ফোন : ০৪৩১-৬৪৫৪৪, ই-মেইল: [email protected]