Current Bangladesh Time
শুক্রবার নভেম্বর ২৭, ২০২০ ১২:৩১ পূর্বাহ্ন
Barisal News
Latest News
প্রচ্ছদ » ভোলা, ভোলা সদর » এমপি জ্যাকবের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ, প্রকৌশলী অবরুদ্ধ
১২ ফেব্রুয়ারী ২০২০ বুধবার ৬:৪০:৫৫ অপরাহ্ন
Print this E-mail this

এমপি জ্যাকবের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ, প্রকৌশলী অবরুদ্ধ


bhola-news-map ভোলা সংবাদ মানচিত্র

অনলাইন ডেস্ক::: সড়কের টেন্ডার হওয়া কাজ করতে না দেয়ায় ভোলা-৪ (চরফ্যাশন-মনপুরা) আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকবের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল করেছে ভোলা স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি)’র ঠিকাদাররা।

আজ বুধবার দুপুরে চরফ্যাশন ও মনপুরায় সড়ক মেরামত ও নির্মাণ কাজ বাস্তবায়নে বাধা দেয়ার অভিযোগে এলজিইডি ভবনের সামনে ঠিকাদাররা একত্রিত হয়ে এ বিক্ষোভ মিছিল করেন।

এ সময় বিক্ষুব্ধ ঠিকাদাররা এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী ও চরফ্যশন উপজেলা প্রকৌশলীকে ভোলা কার্যালয়ে অবরুদ্ধ করে এমপি জ্যাকবের বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে থাকে। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এ ব্যাপারে ভোলা-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও যুব ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকবকে একাধিক বার ফোন দিলেও তিনি ফোন রিসিভ করেনি।

ভুক্তভোগী ঠিকাদাররা জানান, প্রায় ৭০ কোটি টাকার কাজ অনলাইন টেন্ডারিং সিস্টেম (ই-জিপি)’র লটারির মাধ্যমে টেন্ডারে অংশগ্রহণ করে ভোলার স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের ২০ থেকে ২৫ জন ঠিকাদার চরফ্যাশন ও মনপুরা উপজেলায় সড়ক মেরামত ও নির্মাণ কাজের ঠিকাদার হিসেবে নির্বচিত হয়। তবে প্রায় দুই মাস পেরিয়ে গেলেও তাদের কাজের সাইড বুঝিয়ে দেয়া হয়নি। এলজিইডির সংশ্লিষ্ট উপজেলা প্রকৌশলীর কাছে কাজ বুঝিয়ে দেয়ার আবেদন করলে তিনি এমপি জ্যাকবের নির্দেশ ছাড়া কাজ বুঝিয়ে দিতে অপারগতা জানান।

মেসার্স তহুরা এন্টারপ্রাইজের মালিক আব্দুর রাজ্জাক, ঠিকাদার জুলফিকার আহমেদ জুয়েল, ঠিকাদার রুহুল আমিন কুট্টিসহ কয়েকজন ঠিকাদার জানান, স্থানীয় এমপি জ্যাকবের কাছে কাজের সাইড সম্পর্কে আলোচনা করলে তিনি প্রতিটি কাজের জন্য ২০ পার্সেন্ট করে টাকা তার ম্যানেজারের কাছে জমা দেয়ার কথা বলেন। তা না দেয়ায় প্রকৌশলী আমাদেরকে কাজ বুঝিয়ে দিচ্ছে না। এতে করে আমরা টেন্ডারে কাজ পেয়েও কাজ করতে পারছি না।

তারা আরো জানান, এমপি জ্যাকবের এলাকায় এর আগেও কোনো ঠিকাদার তাকে টাকা দেয়া ছাড়া কাজ করতে পারত না। ওই এলাকায় কাজ করতে হলে তাকে কাজপ্রতি ২০ শতাংশ করে টাকা দিতে হতো। এতে করে কাজের মান থারাপ হতো।

ভোলা এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আব্দুর রাজ্জাক জানান, কাজের মূল ঠিকাদাররা কেউ উপজেলা প্রকৌশলীর কাছে যায়নি। তারপরও ঠিকাদারদের অভিযোগের বিষয়টি ও  উদ্ভূত পরিস্থিতি সমাধানে আলোচনা করা হচ্ছে।

সম্পাদনা: বরি/প্রেস/মপ

শেয়ার করতে ক্লিক করুন:

আমাদের বরিশাল ডটকম -এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
(মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। amaderbarisal.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের মিল আছেই এমন হবার কোনো কারণ নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে amaderbarisal.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নেবে না।)
বিএম কলেজের অধ্যক্ষের দায়িত্ব নিলেন জিয়াউল হক
অক্সফোর্ডের করোনা টিকা ৩ কোটি ডোজ কিনবে বাংলাদেশ
শীতের আগমনী বার্তা নিয়ে এলো শিশির
বরিশালে মাস্ক ব্যবহার না করায় ৫৩ জনকে অর্থদণ্ড
কিংবদন্তি ফুটবলার ম্যারাডোনা আর নেই
Recent: Mayor Hiron Barisal
Recent: Barisal B M College
Recent: Tender Terror
Kuakata News

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
আমাদের বরিশাল ২০০৬-২০২০

প্রকাশক ও নির্বাহী সম্পাদক: মোয়াজ্জেম হোসেন চুন্নু, সম্পাদক: রাহাত খান
৪৬১ আগরপুর রোড (নীচ তলা), বরিশাল-৮২০০।
ফোন : ০৪৩১-৬৪৫৪৪, ই-মেইল: hello@amaderbarisal.com