AmaderBarisal.com Logo

বরগুনার কোরবানীর পশুর হাটে স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না কেউ


আমাদেরবরিশাল.কম

২৯ জুলাই ২০২০ বুধবার ৭:৪৭:৫৫ অপরাহ্ন

বরগুনা জেল প্রতিনিধিঃ

বরগুনার বিভিন্ন সাপ্তাহিক বাজার আর গরুর হাটে ক্রেতা-বিক্রেতারা মানছেন না সামাজিক দূরত্ব, স্বাস্থ্যবিধি। সাপ্তাহিক বাজার ও কয়েকটি কোরবানির গরুর হাটে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে এ দৃশ্য। 

বরগুনা পৌরসভার বড় কোরবানির হাট জেলা স্কুল, গৌরিচন্না, ফুলঝুরিসহ কয়েকটি গরুর হাটে গিয়ে দেখা গেছে, প্রশাসনের পক্ষ থেকে হাটে-বাজারে আগতদের সামাজিক দূরত্ব আর স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার প্রচারণা চালানো হলেও অনেকেই যেন শুনে না শোনার ভাব করছেন। তবে ইজারদারের পক্ষ থেকে ক্রেতা-বিক্রেতাদের শরীরের তাপমাত্রা পরিমাপ করা হচ্ছে, হেক্সিসল ব্যবহারের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। 

জেলা স্কুল মাঠে হাটের ইজারাদার পান্না হাওলাদার বলেন, যারা মাস্ক নিয়ে ক্রেতা-বিক্রেতা নিয়ে আসেনি  আমরা তাদেরকে মাস্ক সরবরাহ করছি, হেক্সিসল দিয়ে হাত পরিস্কারের ব্যবস্থা করেছি। একই কথা বলেন, গৌরিচন্না, ফুলঝুরি, বৈকালিন গরুর হাট ইজারাদার হিরু খান। তিনি বলেন, আমরা সরকারের নির্দেশনা মেনেই সব কিছু করার চেষ্টা করছি। জনগণ নিজেরা সচেতনতা না হলে কিছু করার নেই বলে তিনি মন্তব্য করেন।

গরুর হাটে প্রাণিসম্পদ বিভাগের পক্ষ থেকে, ভেটেনারী মেডিকেল টিম, গরুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করছে। রোগাক্রান্ত গরু হাটে প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না।

জেলার বেতাগী উপজেলার কাজীরহাট, চান্দখালীর হাট, মন্নানের হাট, কুমড়াখালীর হাট, আমতলী উপজেলার গাজীপুরহাট, তালতলী উপজেলার তালতলীর গরুর হাটগুরে একই ধরনের তথ্য দিয়েছেন আমাদের সহকর্মীর। অনেকে মাস্ক ব্যবহার করছেন না। সামাজিক দূরত্ব মানছেন না। তালতলী বাজারে গরুর হাট ছাড়াও সাধারণ ক্রেতা-বিক্রেতাদের দেখা গেছে মাস্ক ব্যবহার না করেই কেনা বেচা করছেন।

এ ব্যাপারে কয়েকজন ক্রেতার কাছে জানতে চাইলে তারা, কেউ বলেন ভুলে রেখে এসেছেন। কেউ বলেন, তাদের শ্বাসবন্ধ হয়ে আসে তাই ব্যবহার করছেন না।



সম্পাদনা: আমাদের বরিশাল ডেস্ক


প্রকাশক: মোঃ মোয়াজ্জেম হোসেন তালুকদার    সম্পাদক: মো: জিয়াউল হক
সাঁজের মায়া (২য় তলা), হযরত কালুশাহ সড়ক, বরিশাল-৮২০০। ফোন : ০৪৩১-৬৪৫৪৪, মুঠেফোন : ০১৮২৮১৫২০৮০ ই-মেইল : hello@amaderbarisal.com
আমাদের বরিশাল ডটকম -এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।