Current Bangladesh Time
মঙ্গলবার অক্টোবর ২৭, ২০২০ ৯:০৪ পূর্বাহ্ন
Barisal News
Latest News
প্রচ্ছদ » সংবাদ বিজ্ঞপ্তি, সারা বিশ্ব » পড়ছে ভারত!মাথা পিছু উৎপাদনে ‘অচ্ছে দিন’ যাচ্ছে বাংলাদেশে
১৫ অক্টোবর ২০২০ বৃহস্পতিবার ১২:৩৫:৫২ অপরাহ্ন
Print this E-mail this

পড়ছে ভারত!মাথা পিছু উৎপাদনে ‘অচ্ছে দিন’ যাচ্ছে বাংলাদেশে


আনন্দবাজার পত্রিকা’র রিপোর্ট।

অনলাইন নিউজ ডেস্কঃ

মাথাপিছু জিডিপির দিক থেকে ভারতের চেয়ে এগিয়ে থাকবে বাংলাদেশ। আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক আউটলুকে এই পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। এ নিয়ে ‘‘পড়ছে ভারত! মাথা পিছু উৎপাদনে ‘আচ্ছে দিন’ (সুদিন) যাচ্ছে বাংলাদেশে’’ শিরোনামে ১৪ অক্টোবর খবর প্রকাশ করেছে ভারতের জনপ্রিয় বাংলা সংবাদপত্র আনন্দবাজার পত্রিকা।

তারা লিখেছে: 

করোনার ধাক্কায় টলমল অর্থনীতি। কিন্তু যা আশঙ্কা করা হচ্ছে তার থেকেও খারাপ হতে পারে ভারতের পরিস্থিতি। চলতি বছরে এ দেশের মাথাপিছু জাতীয় উৎপাদন (জিডিপি) বাংলাদেশেরও নিচে চলে যেতে পারে। এমনটাই মনে করছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ)। এমনকি জিডিপির হার ১০.৩ শতাংশ পর্যন্ত সঙ্কুচিত হতে পারে বলেও পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। আইএমএফ-এর সাম্প্রতিক রিপোর্টে অশনি সঙ্কেত দেখছেন অর্থনীতিবিদরা।

মঙ্গলবার প্রকাশিত হয়েছে আইএমএফ-এর ‘ওয়ার্ল্ড  ইকোনমিক আউটলুক’ (ডব্লিউইও)। তাতে বলা হয়েছে, চলতি অর্থবর্ষে (যা ২০২১ সালের মার্চে শেষ হচ্ছে) ভারতের মাথাপিছু জাতীয় উৎপাদন দাঁড়াবে ১ হাজার ৮৭৭ ডলার অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় ১ লক্ষ ৩৭ হাজার টাকার কিছু বেশি। সেখানে বাংলাদেশের মাথা পিছু জাতীয় উৎপাদন হবে ১ হাজার ৮৮৮ ডলার অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় ১ লক্ষ ৩৮ হাজার টাকা। ডব্লিউইও আশঙ্কা করছে, গত ৪ বছরে এটাই রেকর্ড পতন হতে চলেছে।

গত জুন মাসেই আইএমএফ জানিয়েছিল, ভারতের জিডিপি ৪.৫ শতাংশ কমতে পারে। তার মাস চারেকের মাথায় আন্তর্জাতিক ওই সংস্থার রিপোর্টে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে, চলতি বছরে জিডিপির হারে ভয়াবহ পতন ঘটতে পারে। অর্থনীতির এই  মুখ থুবড়ে পড়ার কারণ কী? এর কারণ হিসাবে করোনা এবং তার জেরে টানা লকডাউনকেই চিহ্নিত করছেন অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। তার জেরে অর্থনীতির স্বাভাবিক অগ্রগতি যে জোর ধাক্কা খেয়েছে তা মানছেন সকলেই।

ডব্লিউইও-র মতে, অতিমারির জেরে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলির মধ্যে শ্রীলঙ্কার পর সবচেয়ে বেশি ধাক্কার মুখে পড়বে ভারত। তার তুলনায় খানিকটা এগিয়ে থাকবে নেপাল এবং ভুটানের মতো ছোট দেশগুলির অর্থনীতি।

আইএমএফ-এর আশা, ২০২১ সালেই অর্থনৈতিক ক্ষয়ক্ষতি বেশ খানিকটা মেরামত করে ফেলবে দক্ষিণ এশিয়ার তৃতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ ভারত। তাদের মতে, সব কিছু ঠিক থাকলে আগামী বছরে ভারতের আর্থিক বৃদ্ধি হতে চলেছে ৮.৮ শতাংশ। একই সঙ্গে গোটা বিশ্বের অর্থনৈতিক চিত্রটাও পরিসংখ্যানের মাধ্যমে তুলে ধরেছে আইএমএফ। তাদের মতে, চলতি বছরে সারা বিশ্বে আর্থিক বৃদ্ধি সঙ্কুচিত হবে। তবে আগামী বছরে বৃদ্ধির গতি খানিকটা বাড়বে বলেই মনে করা হচ্ছে।

ভারতের অর্থনৈতিক চালচিত্র নিয়ে আইএমএফের এই ভবিষ্যদ্বাণী আরও খতিয়ে দেখা উচিত বলে মনে করেন অর্থনীতিবিদ দীপঙ্কর দাশগুপ্ত। তার মতে, ‘‘বাংলাদেশের জনসংখ্যা আমাদের থেকে অনেক কম। ফলে মাথাপিছু জাতীয় উৎপাদনের বিষয়টি ভারতের তুলনায় বাংলাদেশের ভাল হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। অর্থনীতিতে আমরা অনেকটা নীচে নেমে গিয়েছি। সেখান থেকে আগামী বছরে কতটা উত্থান হবে তাই হবে বিচার্য বিষয়।’’

আইএমএফ-এর রিপোর্ট প্রকাশ্যে আসতেই মোদী সরকারকে নিশানা করেছেন রাহুল গান্ধী। কটাক্ষের সুরে তার টুইট, ‘গত ৬ বছরে বিজেপির বিদ্বেষমূলক জাতীয়তাবাদী সংস্কৃতির দুর্দান্ত সাফল্য হল, বাংলাদেশ ভারতকে ছাপিয়ে যেতে চলেছে।’

কড়া সমালোচনা করতে ছাড়েননি তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ও। তার টুইট, ‘ভারতের অর্থনীতি ক্ষয়িষ্ণু। এমনকি বাংলাদেশও মাথাপিছু জাতীয় উৎপাদনে আমাদের ছাপিয়ে যেতে চলেছে। মন দিয়ে শুনুন, এটা ওদের উত্তরণ নয়, আমাদের মহাপতন। এটাই নরেন্দ্র মোদীজির ৫ লক্ষ কোটির অর্থনীতির স্বপ্ন!’

তবে আইএমএফের সাম্প্রতিক রিপোর্ট নিয়ে মোদি সরকারের অন্দরের ব্যাখ্যা হল, ক্রয় ক্ষমতার নিরিখে ২০১৯ সালে ভারতের মাথাপিছু জাতীয় উৎপাদন বাংলাদেশের থেকে ১১ গুণ বেশি ছিল। ভারতের জনসংখ্যা বাংলাদেশের ৮ গুণ, সমালোচনার জবাব হিসাবে সেই যুক্তিও তুলে ধরা হচ্ছে।


শেয়ার করতে ক্লিক করুন:

আমাদের বরিশাল ডটকম -এর সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাতায় প্রকাশিত/প্রচারিত বিজ্ঞপ্তিগুলোতে প্রকাশিত তথ্য ও চিত্রের দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান, ব্যক্তি ও বার্তাপ্রেরকের। বিজ্ঞপ্তিতে প্রকাশিত তথ্য ও চিত্রের যথার্থতা নিয়ে amaderbarisal.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নেবে না।
(মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। amaderbarisal.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের মিল আছেই এমন হবার কোনো কারণ নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে amaderbarisal.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নেবে না।)
হাজী সেলিমপুত্রের জেল
আমরা সত্যিকারের জনগণের পুলিশ হতে চাই- ১৪ বছর পূর্তিতে বিএমপি কমিশনার
শেখ হাসিনার উন্নয়নে, দ্বীপেও পাকা সড়ক নির্মাণ -এমপি জ্যাকব
মানুষ ভীতি-আক্রান্ত হয়ে শাসনের অধীন হলে ফল ভাল হয় না
নীতিহীন হলুদ সাংবাদিকতা যেন না হয়: প্রধানমন্ত্রী
Recent: Mayor Hiron Barisal
Recent: Barisal B M College
Recent: Tender Terror
Kuakata News

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
আমাদের বরিশাল ২০০৬-২০২০

প্রকাশক ও নির্বাহী সম্পাদক: মোয়াজ্জেম হোসেন চুন্নু, সম্পাদক: রাহাত খান
৪৬১ আগরপুর রোড (নীচ তলা), বরিশাল-৮২০০।
ফোন : ০৪৩১-৬৪৫৪৪, ই-মেইল: hello@amaderbarisal.com