Current Bangladesh Time
শনিবার মার্চ ৬, ২০২১ ১১:১৫ পূর্বাহ্ন
Barisal News
Latest News
প্রচ্ছদ » চরফ্যাশন, ভোলা » ধর্ষণের ৩৭ দিন পর মামলা! ধরাছোঁয়ার বাইরে অভিযুক্ত
১৮ জানুয়ারী ২০২১ সোমবার ৮:১৮:৩৩ অপরাহ্ন
Print this E-mail this

ধর্ষণের ৩৭ দিন পর মামলা! ধরাছোঁয়ার বাইরে অভিযুক্ত


এ,আর, সোহেব চৌধুরী,চরফ্যাশন (ভোলা) প্রতিনিধি:

স্থানীয় মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেনী পড়ুয়া কিশোরী (১৫) কে ধর্ষণের অভিযোগে ঘটনার ৩৭ দিন পর উপজেলার দুলারহাট থানায় মামলা করেছে ভূক্তভোগীর পরিবার। 

চরফ্যাশন উপজেলার নীলকমল ইউনিয়নের চর যমুনা গ্রামের ওই ছাত্রী গেল ৬ ডিসেম্বর রবিবার বেলা ১১টার সময় ক্লাসের এসাইনমেন্ট জমা দিয়ে বাড়ি আসার পথে একই এলাকার বাহার খলীফার ছেলে শাহিন ও অজ্ঞাত একাধিক যুবক মিলে ওই ছাত্রীর মুখে চেতনানাশক রুমাল চেপে মুন্সিরহাট এলাকায় খালা বাড়ির কাছে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। 

এসময় শাহিনসহ অন্যান্য যুবকদের নির্যাতনে ওই ছাত্রীর জ্ঞাণ ফিরলে তার ডাক চিৎকারে শাহিনসহ অন্যান্যরা কৌশলে পালিয়ে যায় বলে ভূক্তভোগীর মা অভিযোগ করেন। পরে মহিলা ইউপি সদস্য শাহিদা বেগমসহ দুলারহাট থানাপুলিশ তাকে উদ্ধার করে। এসময় পরিবারের সদস্যরা তাকে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায়। 

ভূক্তভোগীর মা আরও অভিযোগ করে বলেন, ধর্ষণকারীরা প্রভাবশালী হওয়ায় নীলকমল ইউপি চেয়ারম্যান পার্শ্ববর্তী নুরাবাদের ইউপি সদস্যসহ মোট ৬জন ইউপি সদস্য এ ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার জন্য সালিস ফয়সালা করে ধর্ষক শাহিনের সঙ্গে ওই ছাত্রির বিয়ে দেয়ার আশ্বাস দেয়ায় ভূক্তভোগী পরিবার তাৎখনীক মামলা করতে পারেনি বলেও দাবী করেন। তবে শাহিনের পরিবারেরা ছেলে মেয়ের বিয়ে দেয়ার আশ্বাস দিলেও সালিসদারগণ কালক্ষেপন করে ধর্ষক শাহিনসহ জড়িতদের পালিয়ে যেতে সহায়তা করেছে বলে জানান ছাত্রীর মা। 

ওই ছাত্রীর চাচা সালাহ উদ্দিন বলেন, এ ঘটনার পূর্বেও ওই ছেলে পিতৃহারা আমার ভাতিজিকে বিভিন্ন নির্জন স্থানে নিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে। পরে স্থানিয়রা সালিস করলে ৫০হাজার টাকাও জরিমানা দেয় ওই ছেলের পরিবার। আর জরিমানা দেয়ার জের ধরেই শাহিনসহ তার বখাটে বন্ধুরা মিলে উঠিয়ে নিয়ে গিয়ে আবারও ধর্ষণ করেছে। 

সালিস ফয়সালার অভিযোগ জানতে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আলমগীর হাওলাদারকে একাধিকবার ফোন দিলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

১২ জানুয়ারী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে শাহিনসহ তার সহদোর ছোট ভাই এবং তার পিতা ও অজ্ঞাত নামে থানায় ভূক্তভোগী ছাত্রীর মা বাদি হয়ে একটি এজহার দিলে তা রুজু করা হয় বলে জানান দুলারহাট থানার ওসি মোরাদ হোসেন।

সম্পাদনা: আমাদের বরিশাল ডেস্ক

শেয়ার করতে ক্লিক করুন:

আমাদের বরিশাল ডটকম -এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
(মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। amaderbarisal.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের মিল আছেই এমন হবার কোনো কারণ নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে amaderbarisal.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নেবে না।)
বিদেশী শত্রু দমনে ১৭৯৮ সালে ‘এক্ম-ওয়াই-জেড’ ফর্মুলার জন্ম!
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম বর্ষের ভর্তির তারিখ ঘোষণা
উন্নয়নশীল দে‌শে উত্তরণের দুর্দান্ত অর্জন উদযাপন: ৭ মার্চ সব থানায় এক‌যো‌গে ‘আনন্দ আয়োজন’
বানারীপাড়ায় গ্রামে শান্তি প্রতিষ্ঠায় ভূমিকা রাখছে ‘গ্রাম আদালত’
আওয়ামী লীগ থেকে বহিস্কৃত ও পদত্যাগী চেয়ারম্যান মিন্টুর ভিজিডির চাল বিতরণ নিয়ে প্রশ্ন !
Recent: Mayor Hiron Barisal
Recent: Barisal B M College
Recent: Tender Terror
Kuakata News

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
আমাদের বরিশাল ২০০৬-২০২০

প্রকাশক ও নির্বাহী সম্পাদক: মোয়াজ্জেম হোসেন চুন্নু, সম্পাদক: রাহাত খান
৪৬১ আগরপুর রোড (নীচ তলা), বরিশাল-৮২০০।
ফোন : ০৪৩১-৬৪৫৪৪, ই-মেইল: hello@amaderbarisal.com