Current Bangladesh Time
শনিবার মার্চ ৬, ২০২১ ১২:২৪ অপরাহ্ন
Barisal News
Latest News
প্রচ্ছদ » ঝালকাঠি, রাজাপুর » রাজাপুরে হাঁস পালনে ভাগ্য ফিরেছে করোনায় বেকার দুই কলেজ ছাত্র ভাইয়ের!!
২৬ জানুয়ারী ২০২১ মঙ্গলবার ৬:০২:৫৪ অপরাহ্ন
Print this E-mail this

রাজাপুরে হাঁস পালনে ভাগ্য ফিরেছে করোনায় বেকার দুই কলেজ ছাত্র ভাইয়ের!!


মোঃ আঃ রহিম রেজা,ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ

ঝালকাঠির রাজাপুরের ছোট কৈবর্তখালি গ্রামের আঃ আলিম সিকদারের ছেলে কলেজ ছাত্র রাসেল ও রাকিব সিকদার দুই ভাই হাঁস পালন করে ভাগ্য ফিরিয়েছেন। করোনায় কলেজ বন্ধ থাকায় বাড়িতে বেকার সময় কাটাচ্ছিলেন, সেই সময়কে কাজে লাগিয়ে হাসের খাবার করে বর্তমানে ডিম বিক্রি করে প্রতিদিন আয় করছেন প্রায় ৬ থেকে ৭ হাজার টাকা।

কলেজ ছাত্র রাসেল সিকদার জানান, তিনি ঢাকার গ্রীন রোডের একটি কলেজে ইঞ্জিনিয়ারিং পড়েন এবং ছোট ভাই রাসেল উপজেলার রাজাপুর ডিগ্রি মাদ্রাসার ফাজিলে পড়েন। গত ২০২০ সালের মার্চে মাসের শেষের দিকে করোনার জন্য স্কুল কলেজ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তারা হাসের ফার্ম করার জন্য উদ্যোগ নেন। তাদের বাড়ি থেকে উত্তর দিকে একটি খালের পশের পাকা সড়কের বিপড়িতে ধানি জমি কেটে উচু করে হাস পালনের উপযোগি একটি কাঠ-টিনের একটি ঘর নির্মান করেন। পানিতে হাঁস পালার জন্য ওই ঘরের সামনের প্রায় ২শ’ গজ খাল জাল দ্বারা বেড়া দিয়ে আটকে দেন। ঘরটিতে বিদ্যুত সংযোগ দেন এবং নির্দিষ্ট এলাকাটি সিসি ক্যামেরার আওতায় নিয়ে নেন। প্রতিটি হাঁসের বাচ্চা ৩৫ টাকা দরে ১১শ’ ক্যাম্পেল জাতের হাসের বাচ্চা ক্রয় করেন। এতে তাদের খরচ হয় প্রায় দেড়লক্ষাধিক টাকা।

হাসগুলো সার্বক্ষণিক দেখাশুনা করার জন্য দুইমাস আগে থেকে এলাকার আবু সালের মাদ্রাসা পড়–য়া ছেলে মিরাজ (১১) কে মাসে ২ হাজার টাকা বেতনে রেখেছেন। হাঁসগুলি ডিম পাড়ার উপযোগি হতে ৬ মাস সময় লেগেছে কিন্তু এতো দিনে ২শ’ হাস মারা গেছে। গত তিন মাস আগে থেকে হাস গুলো ডিম দিতে শুরু করেছে। হাস গুলোর প্রতিদিনের খাবারের জন্য ২০ কেজি ফিড ও ৪০ কেজি ধান লাগে। প্রতি কেজি ফিড ৪০ টাকা ও
প্রতি কেজি ধান ২০ টাকা করে ক্রয় করতে হয়। প্রতি দিনের খাবারের সাথে পশু সম্পদ কর্মকর্তার পরামর্শ অনুযায়ী বিভিন্ন প্রকারের প্রায় ২শ’ টাকার ঔষধ খাওয়াতে হচ্ছে।

বর্তমানে ৯শ’ হাসের মধ্যে প্রতি দিন ৫শ’ থেকে ৬শ’ ডিম পাড়ে। প্রতি হালি ডিম ৪৫ টাকা দরে ফার্ম থেকে পাইকার এসে ক্রয় করে নিয়ে যায়। ভবিষ্যতে এই ফার্ম বড় করা এবং পাশাপাশি গরু অথবা মুরগির ফার্ম করার ইচ্ছা আছে তাদের। এদিকে এ খামার দেখে ওই এলাকার অন্য বেকার যুবকদের মধ্যেও আগ্রহ বাড়ছে।

এ বিষয়ে উপজেলা পশু সম্পদ কর্মকর্তা ডা.মোঃসাজেদুল ইসলাম জানান,পশু হাসপাতালের যারা ফিল্ডে কাজ করেন তারা ওই ফার্মের খোজ খবর নিচ্ছেন এবং পরামর্শ দিচ্ছেন। অপরদিকে ফার্মের লোকজন এসে হাসপাতাল থেকে ঔষধ নেন। তিনি আরো জানান, ফার্ম কর্তৃপক্ষ চাইলে হাসপাতাল কাছ থেকে একটি প্রত্যায়ন পত্র নিয়ে করোনা কালিন সরকারের দেয়া প্রনোদোনা থেকে ব্যাংক দিয়ে পাঁচ শতাংশ মুনাফায় সহজ শর্তে ঋণ নিতে পারেন।

সম্পাদনা: আমাদের বরিশাল ডেস্ক

শেয়ার করতে ক্লিক করুন:

আমাদের বরিশাল ডটকম -এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
(মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। amaderbarisal.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের মিল আছেই এমন হবার কোনো কারণ নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে amaderbarisal.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নেবে না।)
বিদেশী শত্রু দমনে ১৭৯৮ সালে ‘এক্ম-ওয়াই-জেড’ ফর্মুলার জন্ম!
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম বর্ষের ভর্তির তারিখ ঘোষণা
উন্নয়নশীল দে‌শে উত্তরণের দুর্দান্ত অর্জন উদযাপন: ৭ মার্চ সব থানায় এক‌যো‌গে ‘আনন্দ আয়োজন’
বানারীপাড়ায় গ্রামে শান্তি প্রতিষ্ঠায় ভূমিকা রাখছে ‘গ্রাম আদালত’
আওয়ামী লীগ থেকে বহিস্কৃত ও পদত্যাগী চেয়ারম্যান মিন্টুর ভিজিডির চাল বিতরণ নিয়ে প্রশ্ন !
Recent: Mayor Hiron Barisal
Recent: Barisal B M College
Recent: Tender Terror
Kuakata News

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
আমাদের বরিশাল ২০০৬-২০২০

প্রকাশক ও নির্বাহী সম্পাদক: মোয়াজ্জেম হোসেন চুন্নু, সম্পাদক: রাহাত খান
৪৬১ আগরপুর রোড (নীচ তলা), বরিশাল-৮২০০।
ফোন : ০৪৩১-৬৪৫৪৪, ই-মেইল: hello@amaderbarisal.com