Current Bangladesh Time
বুধবার এপ্রিল ১৪, ২০২১ ২:৪৩ পূর্বাহ্ন
Barisal News
Latest News
প্রচ্ছদ » আমতলী, বরগুনা » বরগুনার তালতলীর টেংরাগিড়ি ইকোপার্কে বেড়াতে গিয়ে এক নারী গণধর্ষণের শিকার
১ এপ্রিল ২০২১ বৃহস্পতিবার ৬:০৫:৪৪ অপরাহ্ন
Print this E-mail this

বরগুনার তালতলীর টেংরাগিড়ি ইকোপার্কে বেড়াতে গিয়ে এক নারী গণধর্ষণের শিকার


জাকির হোসেন,আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি:

বরগুনার তালতলী উপজেলার টেংরাগিড়ি ইকোপার্কে ভগ্নিপতির সাথে বেড়াতে গিয়ে বুধবার বিকেলে গণধর্ষনের স্বীকার হয়েছে এক নারী । এঘটনায় ধর্ষিতা নিজে বাদী হয়ে তালতলী থানায় ওই রাতেই ৪ জনকে আসামী করে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

বৃহস্পতিবার সকালে আমতলী উপজেলা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ধর্ষিতা নারীর জবান বন্ধী গ্রহন শেষে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য তাকে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

জানা গেছে,কলাপাড়া উপজেলার নীলগঞ্জ ইউনিয়নের ইসলামপুর গ্রামের এক নারী তার খালাত ভগ্নিপতির সাথে বুধবার বিকেলে ভাড়ায় চালিত মোটর সাইকেল যোগে বরগুনার তালতলী উপজেলার টেংরাগিড়ি ইকোপার্কে বেড়াতে যান।বনে ঘুরতে গিয়ে তাদের পানির পিপিসা লাগে। এসময় দুলাভাই শ্যালিকাকে এবং মটর সাইকেলের চালক মাহাবুবকে বনের ভিতরে অবস্থিত হরিনের খাচার নিকট দাড় করিয়ে খালের অপর প্রান্তে দোকনে যান পানি আনতে। এসময় বনের ভিতরে অবস্থান করা ৪ ধর্ষক সোহাগ (৩০), রুবেল (২৮), মিজান (২৪) ও জাহিদুলের (২১) হরিনের খাচার সামনে উপস্থিত হয়ে আকস্মিক ওই নারীর মুখ চেপে ধরে বনের ভিতরে নিয়ে যান। এসময় মটরসাইকেল চালক ডাক চিৎকার দিলে তার মোবাইল ফোন এবং টাকা ছিনিয়ে নিয়ে দড়ি দিয়ে গাছের সাথে বেঁধে রাখে তাকে।পরে ওই নারীকে ধরে তারা গহীন জঙ্গলে নিয়ে যায়। গহীণ জঙ্গলে নিয়ে ৩ ঘন্টা ধরে সোহাগ, রুবেল, মিজানুর ও জাহিদুল পালাক্রমে তাকে গণধর্ষণ করেন। ধর্ষণ শেষে ওই নারীকে তারা জঙ্গলে ফেলে রেখে চলে যায়।

এদিকে ভগ্নিপতি শালিকাকে না পেয়ে স্থানীয়দের সরনাপন্ন হয়। পরে স্থানীয়দের সহযোগীতায় ওই নারীকে গহীণ জঙ্গল থেকে ওইদিন রাত ১০ টার দিকে উদ্ধার করে তাতীপাড়া গ্রামের ইব্রাহিম মেম্বারের বাড়ীতে রেখে তারা তালতলী থানা পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে তালতলী থানার ওসি (তদন্ত) মো. ফরিদুল ইসলাম ওই মেম্বারের বাড়ি থেকে ধর্ষণের শিকার ওই নারীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

এ ঘটনার ওই নারী বাদী হয়ে মহিপুর আলীপুর গ্রামের সোহাগ (২৫), তালতলী উপজেলার ইদুপাড়া গ্রামের আলাউদ্দিন খলিফার ছেলে রুবেল (২৮), ইদুপাড়া গ্রামের জালাল খলিফার ছেলে মিজান (২৪) ও ইদুপাড়া গ্রামের শাহিন খলিফার ছেলে জাহিদুল (২১)কে আসামী করে ওই রাতেই একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

বৃহস্পতিবার সকালে তালতলী থানার পুলিশ ওই নারীর জবানবন্দির জন্য আমতলী উপজেলা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে প্রেরন করেন। আদালতের বিচারক মো. সাকিব হোসেন জবানবন্দি শেষে ওই নারীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

ফকির হাট বাজারের ব্যবসায়ী সমিতির সহ-সভাপতি ইউপি সদস্য মো. আব্দুস সালাম হাওলাদার বলেন, সোহাগ, জাহিদুল, মিজানুর ও হাসানসহ ১২-১৫ জনের একটি সঙ্গবদ্ধ চক্র প্রায়ই টেংরাগিড়ি ইকোপার্কে বেড়াতে আসা পর্যটকদের সাথে খারাপ আচরণ করে থাকে। এরা ছিনতাইসহ নানা অপকর্মের সাথে জড়িত। এদের কঠিন শাস্তি দাবী করেন তিনি।

মোটর সাইকেল চালক মাহবুব বলেন, আমাকে মারধর করে গাছের সঙ্গে বেঁধে গাড়ীর চাবি, মোবাইল ও টাকা ছিনিয়ে নেয়। পরে তারা ওই নারীকে মুখ বেধে ধরে জঙ্গলে নিয়ে ধর্ষণ করে।

ভগ্নিপতি বলেন, শ্যালিকাকে নিয়ে সোনাকাটা-টেংরাগিরি ইকোপার্কে ঘুরতে আসি। এক
ফাঁকে দোকানে পানি নিতে যাই। এ সুযোগে স্থানীয চারজন বখাটে মোটর সাইকেল
চালককে মারধর করে গাছের সাথে বেঁধে আমার শালিকাকে গহীণ জঙ্গলে নিয়ে ধর্ষণ করে। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় আমি আমার শালিকাকে উদ্ধার করেছি।

ধর্ষিতা ওই নারী বলেন, টেংরাগিড়ি বনে বেড়াতে গিয়ে আমি গণধর্ষনের শিকার হয়েছি।
সোহাগ, রুবেল, মিজান ও জাহিদুল আমাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করেছে। আমি এ ঘটনার কঠিন শাস্তি চাই।

তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি (তদন্ত) ফরিদুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে ধর্ষণের শিকার ওই নারীকে উদ্ধার করে থানায় আনা হয়। এঘটনায় ধর্ষিতা নারী বাদী হয়ে সোহাগ, রুবেল,মিজান ও জাহিদুলকে আসামী করে থানায় ধর্ষণ মামলা হয়েছে।আসামীদের গ্রেফতারের জোর চেষ্টা চলছে। তিনি আরো বলেন,আমতলী উপজেলা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ধর্ষিতা ওই নারীর জবানবন্ধী গ্রহন করা হয়েছে। জবানবন্ধী শেষে তাকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য বরগুনার জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সম্পাদনা: আমাদের বরিশাল ডেস্ক

শেয়ার করতে ক্লিক করুন:

আমাদের বরিশাল ডটকম -এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
(মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। amaderbarisal.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের মিল আছেই এমন হবার কোনো কারণ নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে amaderbarisal.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নেবে না।)
শের-ই বাংলা মেডিকেলের নতুন পরিচালক ডা. সাইফুল ইসলাম
রমজানের চাঁদ দেখা গেছে, কাল রোজা
বরিশালে ডায়রিয়ার প্রকোপ
করোনা: জেলায় নতুন শনাক্তের বেশিরভাগই বরিশাল নগরের
গত ২৪ ঘণ্টায় বরিশালে আরও ৫১ জনের করোনা শনাক্ত ও মৃত্যু ৯ জনের
Recent: Mayor Hiron Barisal
Recent: Barisal B M College
Recent: Tender Terror
Kuakata News

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
আমাদের বরিশাল ২০০৬-২০২০

প্রকাশক ও নির্বাহী সম্পাদক: মোয়াজ্জেম হোসেন চুন্নু, সম্পাদক: রাহাত খান
৪৬১ আগরপুর রোড (নীচ তলা), বরিশাল-৮২০০।
ফোন : ০৪৩১-৬৪৫৪৪, ই-মেইল: hello@amaderbarisal.com