AmaderBarisal.com Logo

স্বর্ণলংকার লুটের অভিযোগ


আমাদেরবরিশাল.কম

৭ আগস্ট ২০২১ শনিবার ১১:২৫:৫২ অপরাহ্ন

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি:

আমতলী উপজেলার গুলিশাখালী গ্রামে শুক্রবার সকালে জমির দখর নিয়ে পূর্ব বিরোধের জের ধরে এক হিন্দু পরিবারের উপর হামলা, শ্লীলতা হানির চেষ্টা, ঘড় ভাংচুরসহ টাকা ও স্বর্ন লুটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় আমতলী থানায় ১১ জনের নাম উল্লেখসহ আরো অঞ্জাত ২০-২৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

মামলার বিবরন সূত্রে জানা গেছে, গুলিশাখালী ইউনিয়নের গুলিশাখালী গ্রামে ১একর সরকারী বিরোধীয় জমির দ্বন্ধের জের ধরে মাধব চন্দ্রহাওলাদার নামে এক হিন্দু পরিবারকে মাধর ধর হামলা এবং গৃহবধূ কাজল রানীর শ্লীলতা হানির চেষ্টা,টাকা ও স্বর্ন লুটের অভিযোগ পাওয়া গেছে।শুক্রবার দুপুরে ওই একই গ্রামের বারেক মাতুব্বর এর নেতৃুত্বে
জমি দখলে নিতে ৩০-৪০ জন সন্ত্রাসী বাহিনী মাধব চন্দ্রের বাড়িতে ঢুকে হামলা করে।বাধা দিলে তারা মাধব চন্দ্রকে কিল ঘুশি লাথি মেরে মাটিতে ফেলে বেধরক মারধর করে। মাধব চন্দ্রকে রক্ষার জন্য তার স্ত্রী কাজল রানী এগিয়ে এলে তাকেও মারধর করে কাপড় খুলে শ্লীলতা হানির চেষ্টা চালায়। এক পর্যায়ে তারা কাজল রনীর গলা এবং কান থেকে জোর পূর্বক স্বর্নেল চেইন, কানের দুল এবং ঘরে থাকা ব্যাবসার নগদ ২ লক্ষ টাকা লুট করে নিয়ে যায়।
মাধব চন্দ্র হাওলাদার অভিযোগ করে বলেন, বারেক মাতুব্বরের সাথে আমাদের জমি নিয়ে পারিবারিক বিরোধ রয়েছে।এ ঘটনার জের ধরে শুক্রবার বারেক মাতুব্বরের নেতৃত্বে ৩০-৪০ জন সন্ত্রাসী বাহিনী আমাদের বাড়িতে ঢুকে আমাকে আমার স্ত্রী কাজল রানীকে মারধর করে এবং আমার স্ত্রীর শ্লীলতা হানির চেষ্টা চালায়। এছাড়া ঘরে থাকা ব্যবসার নগদ ২ লক্ষ টাকা, স্বর্নের চেইন ও কানের দুল লুট করে নিয়ে যায়।
মাদব চন্দ্র হাওলাদার আরো বলেন, আমাদের পৈত্রিক সম্পতি খাস দেখিয়ে গোপনে বারেক মাতুব্বর বন্দোবন্ত নেয়। আদালতে মামলার পর তার বন্দোবন্ত বাতিল করে ওই জমিতে তাকে প্রবেশে নিষেধাঞ্জা জারি করেন।
এর পরও সে জোর পূর্বক আমাদের ওই জমি দখলে নিতে চায়। আমি এঘটনার সুষ্ঠু এবং ন্যায্য বিচার চাই।

আভিযুক্ত বারেক মাতুব্বর হামলা, মারপিট এবং শ্লীলতাহানিসহ টাকা ও স্বর্ন লুটের কথা অস্বীকার করেন। তিনি বলেন মাদব চন্দ্রের দখলীয় সরকারী জমি বন্দোবস্ত সূত্রে আমি মালিক। তারা জোর পূর্বক আমার জমি দখল
করে আছে।
গুলিশাখালী ইউপি চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট মনিরুল ইসলাম বলেন, মারধরের খবর পেয়েছি। বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা চলছে।
আমতলী উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি অশোক মজুমদার বলেন, অবৈধ ভাবে জমি দখলে নিতে হিন্দু পরিবারের উপর হামলা এবং নারীর শ্লীলতা হানির চেষ্টা করেছে, স্বর্ন, টাকা লুট করেছে। এটা জঘন্য অপরাধ। তিনি এঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের বিচার দাবী করেন।
আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. শাহ আলম হাওলাদার বলেন, ঘটনার
খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ৈছি। এ গটনায় ১১ জনকে আসামী করে এবং অঞ্জাত আরো ২০-২৫ জনের নামে থানায় মামলা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে অপরাধীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।



সম্পাদনা: আমাদের বরিশাল ডেস্ক


প্রকাশক: মোঃ মোয়াজ্জেম হোসেন তালুকদার    সম্পাদক: মো: জিয়াউল হক
সাঁজের মায়া (২য় তলা), হযরত কালুশাহ সড়ক, বরিশাল-৮২০০। ফোন : ০৪৩১-৬৪৫৪৪, মুঠেফোন : ০১৮২৮১৫২০৮০ ই-মেইল : hello@amaderbarisal.com
আমাদের বরিশাল ডটকম -এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।