Read more" />
AmaderBarisal.com Logo

কাঁঠালিয়ায় প্রতিবন্ধী পরিবারকে পৈত্রিক ভিটা-মাটি থেকে উচ্ছেদ করার অভিযোগ


আমাদেরবরিশাল.কম

৩১ March ২০২৪ Sunday ৯:৩৪:৩১ PM

কাঁঠালিয়া (ঝালকাঠি) প্রতিনিধি:

ঝালকাঠির কাঁঠালিয়া উপজেলার আনইলবুনিয়া গ্রামে একটি প্রতিবন্ধী পরিবারকে তাদের বাপ-দাদার ভিটা-মাটি থেকে উচ্ছেদ করার অভিযোগ উঠেছে পুলিশ সদস্য আনোয়ার হোসেন দুলালের বিরুদ্ধে। 

রবিবার (৩১ মার্চ) দুপুরে তিন প্রতিবন্ধী সহোদর মোঃ হাসান, আঃ সালাম ও মোঃ ছগির এ বিষয় অভিযোগ করে কাঁঠালিয়া প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে হাসান মিয়া জানান, আমরা জীবন-জীবিকার তাগিদে দীর্ঘদিন চট্টগ্রামে বিভিন্ন দিনমজুরের কাজ করি। করোনাকালীন সময় বাড়িতে আসলে আমার চাচাতো চাচা মোঃ আনোয়ার হোসেন দুলাল পুলিশে চাকুরী করার সুবাদে আমাদের জমাজমি জোর পূর্বক জবর দখল করে ভোগ দখল করছেন।

কোনো ক্রমেই আমরা পৈত্রিক সম্পত্তি উদ্ধার করতে পারছি না। এ নিয়ে একাধিকবার গ্রাম্য শালিশিতে ৫৪ শতাংশ জমি বন্টন করে দিলেও তারা আমাদের ভোগ দখল করতে দিচ্ছে না। বর্তমানে বাধ্য হয়ে দুই প্রতিবন্ধী ভাই ও বৃদ্ধ পিতা-মাতাকে নিয়ে পার্শ্ববর্তী কবির সিকদারের বাড়ী বসবাস করছি।

পুলিশ সদস্য দুলাল ও তার চাচা লতিফের কাছে আমাদের সম্পত্তি বুঝ দেয়ার কথা বললেই আমাদেরকে বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতি দেখায়। আমরা এ সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ও সংশ্লিষ্ট আইন শৃংখলা রক্ষকারী সংস্থার কাছে পৈত্রিক সম্পত্তি উদ্ধারের জন্য জোর দাবি জানাচ্ছি।

এ সময় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন তার পিতা মোঃ দুদা মিয়া হাওলাদার, মাতাঃ খাদিজা বেগম, বোন-ময়না আক্তার, চাচা টুকু মিয়া হাওলাদার, মন্টু মিয়া হাওলাদার ও চাচাতো ভাই আল আমিন। 

এবিষয়ে সকল অভিযোগ অস্বীকার করে পুলিশ সদস্য আনোয়ার হোসেন দুলাল বলেন, আমার বিরুদ্ধে দেওয়া সব অভিযোগ মিথ্যা। আমি কেন তাদের উচ্ছেদ করে দিবো? আমার কাছে ১ শতাংশ জমি পেতে তা আমি মেপে দিয়ে দিছি। আমার কাছে কোন জমি পাবে না। আমার চাচা লতিফ এবং সত্তরের কাছে জমি পাবে৷



সম্পাদনা: আমাদের বরিশাল ডেস্ক


প্রকাশক: মোঃ মোয়াজ্জেম হোসেন তালুকদার    সম্পাদক: মো: জিয়াউল হক
সাঁজের মায়া (২য় তলা), হযরত কালুশাহ সড়ক, বরিশাল-৮২০০। ফোন : ০৪৩১-৬৪৫৪৪, মুঠেফোন : ০১৮২৮১৫২০৮০ ই-মেইল : hello@amaderbarisal.com
আমাদের বরিশাল ডটকম -এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।